রক্তদান শিবিরের আয়োজন নিয়ে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষ

0
12
উত্তর ২৪ পরগণার গোবরডাঙ্গা থানার মছলন্দপুরের বামনডাঙ্গা এলাকায় রক্তদান শিবির আয়োজন নিয়ে প্রকাশ্যে তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষ, জখম হয়েছেন বেশ কয়েকজন। ঘটনায় ১৫ জন আহত হলেও তাদের মধ্যে ৪ জনের আঘাত গুরুতর  হওয়ায় তাদেরকে তড়িঘড়ি প্রথমে মছলন্দপুর গ্রামীণ হাসপাতাল ও পরে সেখান থেকে হাবড়া হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।
বর্তমানে তারা সেখানেই চিকিৎসাধীন। প্রত্যেকের শরীরের একাধিক আঘাত রয়েছে। এরপরই এই ঘটনা নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। স্থানীয় সূত্র অনুযায়ী,বুধবার সন্ধ্যায় টিংঙ্কু গোষ্ঠী এবং ইলিয়াস মোল্লা গোষ্ঠীর মধ্যে গণ্ডগোলের সূত্রপাত, প্রসঙ্গত, আগামী ৯ই ফেব্রুয়ারি রক্তদান শিবিরের জন্য জেলাশাসক এর কাছ থেকে অনুমতি নেয়া হয় ইলিয়াস গোষ্ঠী। এরপরই রক্তদান শিবিরের দায়িত্ব কোন গোষ্ঠীর হাতে থাকবে সেই ঘটনায় স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব টিঙ্কু মন্ডল এর নেতৃত্বে প্রথমে বামন ডাঙায় একটি চায়ের দোকানে হামলা চালায় ইলিয়াস মোল্লা গোষ্ঠীর ওপর, এরপর পুনরায় মগরা বাজারে অতর্কিতে হামলা চালায় তাঁরা। অভিযোগ রড, ইট,পাথর ও বাঁশ দিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয় ইলিয়াস পন্থীর তৃণমূল কর্মীদের। এরপরই বিজেপি বনগাঁ সাংগঠনিক জেলার সাধারণ সম্পাদক দেবদাস মন্ডল জানিয়েছেন, এটি সম্পূর্ণভাবে কাটমানির ভাগবাটোয়ারা তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল। বাংলার মানুষ দেখছেন আগামী দিনে তা বিচার করবেন। অন্যদিকে পাল্টা বনগাঁ সাংগঠনিক জেলার চেয়ারম্যান শংকর দত্ত জানিয়েছেন, এর পেছনে বিজেপি ইন্দন দিয়েছেন। তবে আইন আইনের পথে চলবে।