Tuesday, September 27, 2022
খেলালেভানদোভস্কির হ্যাটট্রিকে শেষ আটে বায়ার্ন

লেভানদোভস্কির হ্যাটট্রিকে শেষ আটে বায়ার্ন

প্রথম লেগে শেষ সময়ের গোলে কোনোমতে হার এড়ানো বায়ার্ন মিউনিখকে এবার দেখা গেল বিধ্বংসী রুপে। ১১ মিনিটের ঝলকে রবের্ত লেভানদোভস্কি করলেন হ্যাটট্রিক, গড়লেন রেকর্ড। সালসবুর্ককে গোল বন্যায় ভাসিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার-ফাইনালে উঠল ছ’বারের চ্যাম্পিয়নরা। 

আলিয়াঞ্জ অ্যারেনায় শেষ ষোলোর ফিরতি লেগে ৭-১ গোলে জিতে দু’ লেগ মিলিয়ে ৮-২ ব্যবধানে এগিয়ে পরের ধাপে পা রেখেছে ইউলিয়ান নাগেলসমানের দল।লেভানদোভস্কির তিন গোলের পর প্রথমার্ধেই ব্যবধান বাড়ান সের্গে জিনাব্রি। বিরতির পর জোড়া গোল করেন টমাস মুলার। শেষ দিকে গোলের দেখা পান লেরয় সানে।প্রথম লেগে ৯০ মিনিটের গোলে ১-১ ড্র নিয়ে ফেরা বায়ার্ন ঘরের মাঠে দ্বিতীয় মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত। সতীর্থের পাস ডি-বক্সে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে লেভানদোভস্কির নিচু শট ঝাঁপিয়ে এক হাতে ঠেকান গোলরক্ষক।পরক্ষণে পাল্টা আক্রমণে সুযোগ পেয়ে যায় সালসবুর্ক।আট গজ দূর থেকে নিকোলাস কাপালদোর শট কিংসলে কোমানের পায়ে লেগে বাইরে যায়।এরপর লেভানদোভস্কির ঝলক। শুরুটা দ্বাদশ মিনিটে, পেনাল্টি গোলে। ২১ মিনিটে আরেকটি স্পট কিকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন পোলিশ ফরোয়ার্ড। দুবারই তিনি নিজে প্রতিপক্ষের বক্সে ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টি দিয়েছিলেন রেফারি।২৩ মিনিটে রবের্ত লেভানদোভস্কি পূর্ণ করেন হ্যাটট্রিক। মাঝমাঠ থেকে মুলারের লম্বা পাস ক্লিয়ার করতে বক্সের বাইরে বেরিয়ে আসেন সফরকারী গোলরক্ষক। তার শটে বল লেভানদোভস্কির পায়ে লেগে পোষ্টে লাগে। ছুটে গিয়ে ফাঁকা গোলে বল পাঠান দুবারের ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলার। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ম্যাচের শুরু থেকে সবচেয়ে কম সময়ে হ্যাটট্রিক এটি, ২৩ মিনিটে। ১৯৯৬ সালে ইন্টার মিলানের হয়ে রসেনবর্গের বিপক্ষে মার্কো সিমোনের ২৪ মিনিটে হ্যাটট্রিক ছিল আগের রেকর্ড।

More News

বায়ার্নের টানা তিন ড্র

0
বুন্দেসলিগায় টানা তিন ম্যাচ জয়ের পর টানা তিন ড্র করে পথ হারিয়েছে বায়ার্ন মিউনিখ। অ্যালিয়াঞ্জ...

এমবাপ্পের জোড়া গোলে জয়ে পিএসজি

0
তিন দিন বাদে নামতে হবে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের লড়াইয়ে।তাই নেইমারসহ শুরুর একাদশে চারটি পরিবর্তন আনেন পিএসজি...

বার্সা-বায়ার্ন-ইন্টার একই গ্রুপে

0
তুরস্কের ইস্তানবুলে হয়ে গেল ২০২২-২৩ সিজনের চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বের ড্র।একই গ্রুপ সি'তে পড়েছে স্প্যানিশ...