বিজেপির গোষ্ঠী সংঘর্ষে রণক্ষেত্র বর্ধমান, পুলিশের লাঠি

0
106

বিজেপির গোষ্ঠী সংঘর্ষে রণক্ষেত্র বর্ধমানে পার্টি অফিসে ভাঙচুর-গাড়িতে আগুন, ইটবৃষ্টি নিয়ন্ত্রণে আনতে লাঠিচার্জ করেছে পুলিশ। উত্তেজিত কর্মীদের বিরুদ্ধে জেলা বিজেপি সভাপতিকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে।

এমন ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা তৈরি হয়েছে। ক্ষুব্ধ বিজেপি কর্মীদের অভিযোগ, দলের পুরনো কর্মীদের গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে না। জেলা সভাপতি পদ থেকে সন্দীপ নন্দীকে সরাতে হবে, পুরনোরা গুরুত্ব পাচ্ছে না, এই অভিযোগে ক্ষুব্ধ কর্মীরা বর্ধমানের ঘোড়দৌড় চটির দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন। অভিযোগ, এই সময়ে বর্তমানে ক্ষমতাসীন গোষ্ঠীর অনুগামীরা এসে পৌঁছলে দুপক্ষের মধ্যে বচসা, বিবাদ তুঙ্গে ওঠে। বচসা-বিবাদ পর্ব চলার মধ্যে আচমকাই ধুন্ধুমার পরিস্থিতি তৈরি হয়। অভিযোগ, দুপক্ষের মধ্যে ব্যাপক অশান্তির মধ্যেই শুরু হয়ে যায় ভাঙচুর-ইটবৃষ্টি। এর মধ্যেই ক্ষুব্ধ বিজেপি কর্মীদের একাংশ পরপর দুটি পণ্যবাহী গাড়িতেও আগুন ধরিয়ে দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ পৌঁছলেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বেগ পেতে হয়। শেষপর্যন্ত উত্তেজিত জনতাকে হঠাতে বলপ্রয়োগ করে পুলিশ। এদিকে, গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের কথা অস্বীকার করে পার্টি অফিস ভাঙচুর-অশান্তির ঘটনার জন্য তৃণমূল কংগ্রেসের ঘাড়ে দোষ চাপিয়েছে বিজেপি। যদিও, তৃণমূল তা মানতে চায়নি। এদিকে, অশান্তির ঘটনায় বিজেপির বহু নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এলাকায় উত্তেজনা থাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।