ছপক : ট্রেলার লঞ্চে কাঁদলেন দীপিকা 

0
21
Chhapaak Deepika Padukone cries at trailer launch

Last Updated on by

অ্যাসিড হামলায় আক্রান্ত লক্ষ্মী আগরওয়ালের জীবনের ঘটনাকে কেন্দ্র করে ছপক বানিয়েছেন পরিচালক মেঘনা গুলজার। ইতিমধ্যেই যাঁরা ট্রেলারটি দেখে ফেলেছেন তাঁদের অনেকের চোখেই হয়ত জল এনেছে অ্যাসিড হামলার এই নৃশংসতা। ট্রেলার লঞ্চে গিয়ে ছপক-এর ট্রেলার দেখে অঝোরে কেঁদে ফেলেছেন দীপিকা পাডুকোন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠে এসেছে, ছপক ট্রেলার লঞ্চ অনুষ্ঠানের সেই ভিডিয়ো। যেখানে দেখা যাচ্ছে মঞ্চে পরিচালকের সঙ্গেই দাঁড়িয়ে রয়েছেন দীপিকা। ছবি সম্পর্কে বলতে বলতে গলা ধরে এসেছে অভিনেত্রী দীপিকার। বলেছেন, তিনি শুধু ভেবেছিলেন, ট্রেলার দেখানো পর মঞ্চে উঠতে হবে। তবে ছবিটি নিয়ে কখনও কিছু বলতে হবে বলে বুঝতে পারেন নি। যখনই তিনি এই ছবির ট্রেলার দেখেন …  বলেই কেঁদে ফেলতে দেখা গিয়েছে অভিনেত্রী দীপিকা পাডুকোনকে। তাঁকে সামলানোর চেষ্টা করেছেন পরিচালক মেঘনা গুলজার। এর পরে দীপিকা বলেছেন, দুঃখিত তিনি ঠিক কথা বলতে পারছেন না।পরে অবশ্য দীপিকা বলেছেন, প্রথমে ছবির গল্প শোনেন , তারপরই ঠিক করেন  ছবিটা করবেন কিনা, এক্ষেত্রে পরিচালক যখন তাঁকে ছবির গল্প বলেছিলেন। আর ছপকের গল্প শুনেই এটা দীপিকাপাডুকোন-র জীবনের অংশ হয়ে উঠেছিল। পরিচালক মেঘনাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছেন তাঁর উপর ভরসা করার জন্য। এই ছবিতে কাজ করাটাই দীপিকার কাছে একটা অসাধারণ অভিজ্ঞতা, আবার, ভীষণই আবেগপ্রবণ ঘটনাও বলা যায়। এটা দীপিকার কেরিয়ারের অন্যতম গুরুত্বপূ্র্ণ ছবি। দীপিকাপাডুকোন-র মনে হয় ছবির প্রভাব সকলের উপর পড়বে। এরপর ফের একবার গলা ধরে এসেছে দীপিকার। আরও কিছুটা কথা বলতে বলতে দীপিকা বলেছেন, আর শব্দ খুঁজে পাচ্ছেন না, দুঃখিত। ছপক-এর ট্রেলারে ধরা পড়েছে অ্যাসিড হামলার বিভৎসতা। ছবিতে লক্মীর নাম বদলে মালতী রাখা হয়েছে। তাঁর জীবন অ্যাসিড হামলার পর কতটা কঠিন হয়ে ওঠেছিল, কীভাবে এগিয়েছিল, সেটাই তুলে ধরা হয়েছে ট্রেলারে। ছবিতে অ্যাসিড আক্রান্ত লক্ষ্মী আগরওয়ালের জীবনের ঘটনা ও লড়াইয়ের কথাই উঠে আসতে চলেছে।