রানিগঞ্জে ২০ ঘণ্টা পর উদ্ধার ৩ শ্রমিকের মৃতদেহ

0
15

অবশেষে ২০ ঘন্টা পর রানীগন্জের মঙ্গলপুর বেসরকারি স্পঞ্জ আয়রন কারখানায় জমা করা ফ্লাই অ্যাশ স্টোরেজ ট্যাংক থেকে উদ্ধার হয়েছে নিখোঁজ ৩ শ্রমিকের মৃতদেহ। মৃত শ্রমিকদের নাম দিলীপ ঘোষ, শিব শঙ্কর ভট্টচার্য, তন্ময় ঘোষ।

বস্তুত, শনিবার রানিগঞ্জের মঙ্গলপুরে স্পঞ্জ আয়রন কারখানায় জমা করা ফ্লাই অ্যাশ স্টোরেজ ট্যাংক বা ছাই ভরতি চৌবাচ্চাটি ভেঙে পড়ে। সেই সময় কাজ করছিলেন বেশ কয়েকজন শ্রমিক। শ্রমিকদের একাংশের দাবি, সেই সময় ৩ জন শ্রমিক তাঁর নিচে চাপা পড়ে যায়। এরপরই দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ ও দমকল বাহিনী। উদ্ধারকাজ শুরু করেন তাঁরা। দমকলকর্মীদের উপস্থিতিতে ক্রেন ও জেসিপি দিয়ে কনটেইনারের ধ্বংসাবশেষ সরানোর কাজ শুরু হয়। এরপরই সন্ধেবেলা ওই সংস্থারই জামুরিয়ার বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রের তেলের ড্রাম ফেটে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড-র ঘটনা ঘটে। যারফলে, একই দিনে সংস্থার দুই কারখানার জোড়া দুর্ঘটনায় যথারীতি প্রশ্নের মুখে কর্তৃপক্ষ। বর্ধমান জেলা আইএনটিটিইউসির সভাপতি অভিজিৎ ঘটক, তাপস বন্দোপাধ্যায় এই ঘটনায় কারখানা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে গাফিলতির অভিযোগ তুলে ক্ষোভপ্রকাশ করেছেন। পাশাপাশি তাঁরা নিহত কর্মীদের পরিবারকে আর্থিক সাহায্য নিহতদের পরিবারের একজনকে চাকরি দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তিনি। একই দাবি কারখানার অন্য কর্মীদের তরফেও করা হয়েছে।