মধ্য কলকাতার বহুতলে বিধ্বংসী আগুন, মৃত ২

0
4

মধ্য কলকাতার বহুতলে বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এক কিশোর ও বৃদ্ধা সহ দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। গভীর রাতে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হলেও, শনিবার সকালে বহুতলের ছ’তলায় ফের ধোঁয়া নজরে এসেছে।

যার ফলে নতুন করে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে আবাসিকদের মধ্যে। সূত্রের খবর, শুক্রবার রাত আনুমানিক সোয়া দশটা নাগাদ মধ্য কলকাতায় একুশ নম্বর গণেশ চন্দ্র অ্যাভিনিউয়ের একটি বহুতলে আগুন নজরে আসে। দমকল জানিয়েছে, ওই বহুতলে প্রায় পঞ্চাশটি পরিবার থাকে। একতলার মিটার ঘরে প্রথমে আগুন লাগে। পরে তা ওয়্যারিং ধরে ক্রমশ বহুতলে ছড়িয়ে পড়ে। এদিকে, আগুন নজরে আসা মাত্রই আবাসিকরা আতঙ্কে ছোটাছুটি দৌড়াদৌড়ি শুরু করে দেন। যেন তেন প্রকারে বহুতল থেকে বেরিয়ে আসার জন্য মরিয়া হয়ে ওঠেন আবাসিকরা। এই অবস্থায় খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে দমকল পৌঁছয়। গণেশ চন্দ্র অ্যাভিনিউয়ে যান দমকলমন্ত্রী সুজিত বসুও। এরই মধ্যে বছর বারোর এক কিশোর আগুন থেকে বাঁচতে বহুতলের ওপর থেকে ঝাঁপ দেয়। ফলে, ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এদিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে দমকলের বারোটি ইঞ্জিন এবং একটি হাইড্রলিক ল্যাডার কাজ শুরু করে। গভীর রাতের কাছাকাছি সময়ে শেষপর্যন্ত আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়। আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার পর বহুতলের ভিতরে আবাসিক কেউ আটকে আছেন কী না, সে বিষয়ে খোঁজ করতে গিয়ে এক বৃদ্ধার অগ্নিদগ্ধ দেহ উদ্ধার করেন দমকল কর্মীরা। দমকল জানিয়েছে, অগ্নিকাণ্ডের সময়ে ওই বৃদ্ধা বাথরুমে গিয়ে আটকে পড়েছিলেন। ফলে, আর তিনি বেরোতে পারেননি। প্রচণ্ড ধোঁয়ার কারণে শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে ওই বৃদ্ধার।