৫ রাজ্যে ভোটে জনসভায় নিষেধাজ্ঞা ২২ জানুয়ারি পর্যন্ত 

0
16

উত্তরপ্রদেশ সহ পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে ২২ জানুয়ারি পর্যন্ত করা যাবে না কোনও র‍্যালি। এমনটাই জানানো হয়েছে জাতীয় নির্বাচন কমিশনের তরফে।

এছাড়াও ৪ দেওয়ালের মধ্যে সর্বাধিক ৩০০ জন নিয়ে করা যেতে পারে সভা। সভাকক্ষে ৫০ শতাংশের বেশি জমায়েত নয়। রাজনৈতিক দলগুলিকে মানতে হবে করোনা বিধি। বস্তুত, এর আগে করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে ১৫ জানুয়ারি অর্থাৎ শুক্রবার পর্যন্ত সশরীরে উপস্থিত থেকে যাবতীয় সভা – সমাবেশ, মিছিল, রোড শো বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছিল কমিশন। এবার সেই নিষেধাজ্ঞা আরও সাত দিন বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় নির্বাচন কমিশন। শনিবার সকালে এই বিষয় নিয়ে আলোচনায় বসেছিলেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুশীল চন্দ্র। উল্লেখ্য, করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার কারণে পাঁচ রাজ্যে নির্বাচনের আগে যাবতীয় খোলা ময়দানে সভা, সমাবেশের উপর সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। ঘটনা সম্পর্কে ওয়াকিবহাল সূত্রের খবর, এই সাময়িক নিষেধাজ্ঞা আরও কিছুদিন বাড়ানোর চিন্তা ভাবনা করেছিল কমিশন।৮ জানুয়ারি ভোটের নির্ঘণ্ট প্রকাশের সময় জাতীয় নির্বাচন কমিশনের তরফে বলা হয়েছিল, ১৫ জানুয়ারি অর্থাৎ, আজ পর্যন্ত সভা, সমাবেশ, রোড শো এবং অন্যান্য রাজনৈতিক কর্মসূচি নিষিদ্ধ করার কথা বলেছিল। বলা হয়েছিল, এই সাময়িক নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি নিয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে জানানো হবে। সেই মতো শনিবার সকাল ১১ টা থেকে জাতীয় নির্বাচন কমিশন একের পর এক বৈঠকে বসেছে। উত্তর প্রদেশ, পঞ্জাব, গোয়া, উত্তরাখণ্ড এবং মণিপুরে যতটা সম্ভব করোনা বিধি মেনে, সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন পর্বের আয়োজন করার জন্য কড়া সিদ্ধান্তের পথে হেঁটেছিল জাতীয় নির্বাচন কমিশন। গোটা দেশের মতো ভোটমুখী পাঁচ রাজ্যেও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ভয়ঙ্কর বৃদ্ধি দেখা গিয়েছে।