Tuesday, June 28, 2022
লাইফস্টাইলস্মলপক্স ও মাঙ্কিপক্সের মধ্যে পার্থক্য

স্মলপক্স ও মাঙ্কিপক্সের মধ্যে পার্থক্য

বিশ্বজুড়ে মাঙ্কিপক্সে আক্রান্তের খবর মিলছে। ইউরোপের দেশগুলোতে এর প্রভাব বেশি দেখা যাচ্ছে। অন্যদিকে আমেরিকা থেকে অস্ট্রেলিয়ার মতো দেশে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছে মাঙ্কিপক্স। এই রোগের মূল উৎস আফ্রিকায় খুঁজে পাওয়া গেলেও তা এবার ধীরে ধীরে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছে।

এখন ঘটনা হলো স্মলপক্স ও মাঙ্কিপক্সের মধ্যে মিল আছে।বলা হচ্ছে,স্মলপক্সের মতো অতটা তীব্র নয় মাঙ্কিপক্স।যদি দুটো রোগই অর্থপক্সের মতো ভাইরাসের এক একটি ধরন থেকে শরীরে দানা বাঁধে।মূলত আফ্রিকায় এই মাঙ্কিপক্স দেখা যায়।তবে আফ্রিকার বৃষ্টিঅরণ্যে এর মূল উৎস। স্মলপক্সের মতোই মাথার যন্ত্রণা, ব়্যাশ, জ্বর দিয়ে শুরু হয় এই পক্স।একইসঙ্গে মাঙ্কিপক্সের ফলে গ্ল্যান্ড বা লিম্ফ নোড বড় হওয়ার প্রবণতা থাকে। দুটো ক্ষেত্রেই সঙ্গে থাকে জ্বর। যদিও মাঙ্কিপক্সের মৃত্যুর হার ১০ শতাংশ, তবুও এই রোগে সচেতন থাকা প্রয়োজন।বলা হচ্ছে মাঙ্কিপক্স আসতে পারে পশু থেকে। ইঁদুর, কাঠবেড়ালির ত্বক বা তাদের আঁচড় থেকে এই পক্স হতে পারে।এ ছাড়া এই প্রাণীগুলোর রক্ত থেকে এই সমস্যা দানা বাঁধতে পারে।তবে যদি সেই প্রাণী নিজে এই রোগে আক্রান্ত থাকে, তবেই প্রাণী থেকে এই রোগ ছড়াতে পারে। এখন প্রশ্ন হলো,কীভাবে ছড়াচ্ছে মাঙ্কিপক্স?মাঙ্কিপক্স আক্রান্তের সর্দি, কাশি থেকে এই রোগ ছড়িয়ে যায়। আক্রান্তের সঙ্গে অনেকক্ষণ মুখোমুখী কথা বললে এই রোগ ছড়িয়ে যেতে পারে। যৌন মিলন থেকেও এই রোগ ছড়াতে পারে। এ ছাড়া এমন কোনো জিনিস, বা পোশাক, ভাইরাস আক্রান্তের রক্ত থেকে ছড়িয়ে যায় এই রোগ। আবার,২ সপ্তাহের মধ্যে সেরে যায় মাঙ্কিপক্স। নিজে থেকেই সেরে ওঠে বেশিরভাগ সময়। তবে প্রয়োজনে ওষুধের দরকার পড়ে। অল্প থাকতেই বা লক্ষণ দেখা দিলে চিকিৎসায় সেরে ওঠে মাঙ্কিপক্স।

More News

মাঙ্কিপক্স নিয়ে জরুরী বৈঠকে হু 

0
বিশ্বজুড়ে মাঙ্কি পক্সের সংক্রমণের উপর নজরদারির জন্য জরুরী কমিটি গঠন করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তথা...

মাংকিপক্স মহামারির রূপ নেবে না

0
মাংকিপক্সের প্রাদুর্ভাব মহামারিতে রূপ নেবে বলে মনে করে না বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা,ডাব্লিউএইচও।  মাংকিপক্স সংক্রান্ত শীর্ষ...

দেশে প্রথম মাঙ্কি পক্সের নমুনা পরীক্ষা 

0
উত্তরপ্রদেশে মাঙ্কি পক্স ভাইরাস সংক্রমণের আশঙ্কায় পাঁচ বছরের এক শিশুর নমুনা পরীক্ষা করতে দেওয়া হয়েছে।...