পরকীয়ায় বাধা, পাঞ্জাবে খুন ২ সন্তান সহ পরিযায়ী

0
12
ভিন রাজ্যে কাজে গিয়েছে উত্তর দিনাজপুরের  পরিযায়ী  শ্রমিক ও তার দুই নাবালক ছেলের রহস্য মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। এমন ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মৃতের স্ত্রী মর্জিনাকে গ্রেফতার করা  হয়েছে।
পুলিশের ধারণা, মৃত  পরিযায়ী শ্রমিক মঙ্গু শেখের স্ত্রী মর্জিনার সঙ্গে ঠিকাদার অরিজিত্ সিংযে ঘনিষ্ঠতা জানতে পেরে যাওয়ার জন্যই স্বামী ও সন্তানদের খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। সূত্রের খবর, রায়গঞ্জের গৌরি পঞ্চায়েত হাতিয়া স্কুল সংলগ্ন পাঠানটুলির বাসিন্দা মঙ্গু শেখ ও তার স্ত্রী এক ঠিকাদারের অধীনে পাঞ্জাব সীমান্তে নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করতেন। গত বছরই পাঁচ বছরের ছেলে আলি শেখকে পাঞ্জাবে নিযে গিয়েছিলেন ওই দম্পতি। পরবর্তী সময়ে আট বছরের সোহেল আলি ও মেযে আদুরি খাতুনকেও পাঞ্জাবে নিযে যান তারা। অভিযোগ, কর্মসূত্রেই ঠিকাদার অরিজিত্ সিংয়ের ঘনিষ্ঠতা বাড়তে শুরু করে মঙ্গুর স্ত্রী, মর্জিনার। বিষয়টি জানতে পেরে যান মঙ্গু। আর বিষযটির প্রতিবাদ করায় মঙ্গু ও তার দুই সন্তানকে খুন করে দেহ ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। খুনের প্রত্যক্ষদর্শী মেযে আদুরির বয়ানের ভিত্তিতে পুলিশ ঠিকাদার অরিজিত্ ও মর্জিনাকে গ্রেফতার করেছে। শুক্রবার নিহতদের দেহ তাদের গ্রামের বাড়িতে এসে পেঁছতেই কান্নায় ভেঙে পড়েছেন এলাকার মানুষ।