ক্ষতিকর বন্ধু – জীবন থেকে দূরে

0
7

বড় হওয়ার সাথে সাথে একটি বিষয় লক্ষ্য করবেন যে, কিছু বন্ধু আছে যারা শুধু কটাক্ষ করায় ব্যস্ত থাকে। এসব টক্সিক মানুষগুলোকে জীবন থেকে ঝেড়ে ফেলে দিন।যদি দেখেন বন্ধুটি জীবনকে আরো কঠিন করে তুলছে তবে ওই বন্ধুকে জীবন থেকে বাদ দিন।

একটি ভালো বন্ধু জীবনে ইতিবাচক ধারণা দেবে এবং জীবনেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। অনেক দিনের বন্ধুত্ব বাদ দেওয়া আসলেই কঠিন। তবে সেই বন্ধু যদি জীবনকে নেতিবাচকতায় ভরে তোলে তাহলে এমন বন্ধু থাকার চেয়ে না থাকাই ভালো।কয়েকটি বিষয় অবলম্বন করে এসব টক্সিক মানুষকে জীবন থেকে দূরে রাখুন।কিন্তু তার আগে ,কি বলবেন ও কিভাবে বলবেন ঠিক করে নিন।একবার নিশ্চিত হয়ে উঠলেন যে বন্ধুত্বটি বিষাক্ত হয়ে উঠেছে এই বন্ধুত্ব রেখে কোন লাভ নেই সেক্ষেত্রে যোগাযোগ করা জরুরী। কোথায় কিভাবে বন্ধুটিকে বিষয়টি বলবেন তা আগেই ঠিক করুন। অনলাইন চ্যাটের চেয়ে চেষ্টা করুন সামনাসামনি কথা বলতে।বন্ধুকে সরাসরি গিয়ে বলুন বন্ধুত্ব শেষ করতে চান। তবে দুজনের কেউ যেন রাগান্বিত না হয়ে ওঠেন সে বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে।দুজন বসে কথা বলুন,তারপর বলুন তার সাথে বন্ধুত্ব রাখতে চাইচ্ছেন না কি কারণে।এর বাইরে,আস্তে আস্তে যোগাযোগ, দেখা করা কমিয়ে দিন। এতে করে একটা সময় যোগাযোগ একেবারে বন্ধ হয়ে যাবে। তবে দু পক্ষেরই সম্মতি থাকতে হবে। না হলে একপক্ষ অপরপক্ষকে ঘৃণা করা শুরু করবে।যদি এর পর বন্ধুত্বের মধ্যে আক্রমণাত্বক হয়ে উঠে আসে তাহলে একবারে যোগাযোগ বন্ধ করে দেওয়া উচিত। নিজেকে ওই পরিস্থিতি থেকে দূরে সরিয়ে আনুন। ওই পরিস্থিতি থেকে সরে আসতে সরাসরি তাদেরকে ব্লক করতে পারেন।