ডেপ ও অ্যাম্বার তোপ দাগছেন 

0
1

Last Updated on by

প্রায় ৩ বছর আগেই বিয়ে ভেঙেছে, কিন্তু প্রাক্তন সেলিব্রিটি দম্পতি জনি ডেপ ও অ্যাম্বার হার্ডের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে এখনও কাঁদা ছোড়াছুড়ি চলছে। লন্ডনের আদালতে একে অপরের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন ডেপ ও অ্যাম্বার।

আদালতে প্রাক্তন স্ত্রীয়ের বিরুদ্ধে পারিবারিক হিংসার অভিযোগ তুলেছেন প্রিন্স অফ ক্যারিবিয়ান খ্যাত জনি ডেপ। লন্ডনের আদালতে ডেপের আইনজীবী অভিযোগ করেন, ২০১৫ সালে অস্ট্রেলিয়ায় তাঁর মক্কেলকে ভোদকার বোতল ছুড়ে মারেন অ্যাম্বার। যারজেরে ডেপের আঙুল দু’খণ্ড হয়ে যায়। ডেপের বিরুদ্ধে পালটা মারধরের অভিযোগ করেছেন অ্যাকুয়াম্যান খ্যাত অভিনেত্রী অ্যাম্বার।২০১৮ সালের এপ্রিল মাসে একটি ব্রিটিশ সংবাদপত্রে জনি ডেপের বিরুদ্ধে প্রাক্তন স্ত্রী অ্যাম্বারকে মারধরের অভিযোগ করা হয়। এরপরেই সেই সংবাদপত্র ও তার সম্পাদকের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা দায়ের করেন বছর ৫৭-র জনি ডেপ।লন্ডনের আদালতে সেই মামলা শুনানি ছিল। শুনানিতে সংবাদপত্রের আইনজীবী দাবি করেন, তাদের কাছে ডেপের বিরুদ্ধে মারধরের তথ্যপ্রমাণ রয়েছে। আইনজীবীর দাবি, ডেপের হাতে আঁকা এই ট্যাটু নিয়ে হাসাহাসি করেছিলেন অ্যাম্বার। তাতেই চটে যান অভিনেতা,অ্যাম্বারকে ব্যাপক মারধর করেন। প্রাক্তন স্ত্রীকে মারধরের অভিযোগ পুরোপুরি উড়িয়ে দিয়েছেন জনি ডেপ। উলটে তিনিই স্ত্রীয়ের হাতে হিংসার শিকার বলে আদালতে পালটা দাবি করেছেন। আদালতে ডেপ লিখিত দিয়ে অভিযোগ করেছেন, বিয়ের পরেও একাধিক সম্পর্কে জড়িয়েছেন অ্যাম্বার। ২০১৫ সালে টেসলার চিফ এক্সিকিউটিফ এলন মাস্কের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান অভিনেত্রী অ্যাম্বার হার্ড। এরপর সহ অভিনেতা জেমস ফ্রাঙ্কোর সঙ্গেও ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক তৈরি হয়। জনি ডেপের এই অভিযোগ অবশ্য উড়িয়ে দিয়েছে অ্যাম্বার হার্ড।