কেএলও-র তালিবান যোগ, বাড়ছে চিন্তা

0
19

বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন, কেএলও বা কামতাপুর লিবারেশন অর্গানাইজেশনের সঙ্গে তালিবানদের ঘনিষ্ঠ যোগাযোগের বিস্ফোরক তথ্য হাতে এসেছে গোয়েন্দাদের। প্রাক্তন কেএলও জঙ্গিদের জেরা করে জানা গিয়েছে, অসমের বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন আলফা-র মাধ্যমে তালিবান-কেএলও যোগসূত্র তৈরি হয়েছিল।

আফগানিস্তান তালিবানদের দখলে যাওয়ার পর থেকেই এ রাজ্যের বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠনগুলিকে নিয়ে চিন্তা বাড়ছিল গোয়েন্দাদের। এই অবস্থায় প্রাক্তন কেএলও জঙ্গিদের জেরা করে বিস্ফোরক তথ্য হাতে এসেছে গোয়েন্দাদের। জানা গিয়েছে, ২০০৩ সালে ভুটানে কেএলও যখন সক্রিয় হয়ে উঠেছিল, সেই সময় বিচ্ছিন্নতাবাদী ওই সংগঠনের বেশ কয়েকজন প্রথম সারির নেতার আফগানিস্তানে যাওয়ার কথা হয়েছিল। এ বিষয়ে কথাবার্তাও অনেক দূর এগিয়েছিল। প্রাক্তন কেএলও জঙ্গিদের দাবি, তালিবান জঙ্গিদের কাছেই প্রশিক্ষণ নেওয়ার কথা ছিল তাদের। সেই মতো অনেক জঙ্গিরই ভিসাও হয়ে গিয়েছিল। প্রাক্তন কেএলও জঙ্গিরা জানিয়েছেন, অসমের বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন, আলফার মাধ্যমে যোগাযোগ হয়েছিল কেএলও-দের। আর এতে উদ্বেগ আরও বেড়েছে। সেক্ষেত্রে আলফা-তালিবান ঘনিষ্ঠতা স্পষ্ট হয়েছে বলে মনে করছেন গোয়েন্দারা। ইতিমধ্যেই নতুন করে সক্রিয় হয়ে উঠেছে কেএলও প্রধান জীবন সিং। আর এতেই ফের কেএলও-তালিবান যোগসূত্র তৈরির আশঙ্কা প্রবল হয়ে উঠেছে। এই অবস্থায় জীবন সিংয়ের গতিবিধির ওপর কড়া নজর রাখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কোচবিহারের পুলিশ সুপার সুমিত কুমার।