মেজাজ হারালেন কোহলি

0
9

সিরিজের ফলাফল যাই হোক, কেপটাউন টেস্টের তৃতীয় দিন স্টাম্প মাইক গেট বিতর্ক হিসেবেই মনে রাখবে।জোহানেসবার্গ টেস্টের মত চলতি ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসেও ডিন এলগার একটা দিক আগলে  রেখেছিলেন। 

আর ঠিক সেই সময় শুরু হল বিতর্ক। দক্ষিণ আফ্রিকা ইনিংসের ২০.৪ ওভারে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের বলে এলগারকে এলবিডব্লিউ আউট দেন আম্পায়ার মারিয়াস এরাসমাস।সঙ্গে সঙ্গে রিভিউ নেন এলগার। বল পিচড করা থেকে ইমপ্যাক্ট পর্যন্ত সব কিছুই আম্পায়ারের সিদ্ধান্তকে সমর্থন করছিল। তবে ট্র্যাকিংয়ে হঠাৎই দেখা যায় যে বল স্টাম্পের উপর দিয়ে চলে যাচ্ছে। আর এরপরেই গর্জে ওঠেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি।স্টাম্প মাইকের কাছে গিয়ে কোহলি থেকে শুরু করে অশ্বিন, কে এল রাহুলরা প্রতিবাদ জানাতে থাকেন। টিম ইন্ডিয়ার অভিযোগ, গোটা দক্ষিণ আফ্রিকা, ভারতের ১১ জনের বিরুদ্ধে খেলছে।আম্পায়ার মারিয়াস ইরাসমাসের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে রিভিউ নেন এলগার। সেখানে দেখা যায় বল এলগারের পা ছুঁলেও উইকেটের উপর দিয়ে চলে যাচ্ছে। উইকেট ভাঙার কোনও সম্ভাবনাই ছিল না বলের।তৃতীয় আম্পায়ার ডিয়েন পালেকর,ইরাসমাসকে নির্দেশ দেন সিদ্ধান্ত বদল করার জন্য। সঙ্গে সঙ্গে ভারতীয় ক্রিকেটারদের মধ্যে বিরক্তি ফুটে ওঠে।সকলে অবাক হয়ে যান।মেজাজে হারিয়ে কোহলি স্টাম্প মাইকের কাছে গিয়ে কথা শুরু করে দেন,দারুণ ডিআরএস, খুব ভাল খেললে।কে এল রাহুল আবার বলেন,গোটা দেশ খেলছে ১১ জনের বিরুদ্ধে।কোহলিকে ফের বলতে শোনা যায়,তোমাদের দল যখন বল পালিশ করে, তখন তাদের উপরেও ক্যামেরা তাক করো। শুধু বিপক্ষ খেলোয়াড়দের উপর নয়।পরে কোহলিকে স্টাম্প থেকে দূরে সরে যাওয়ার সময় আরও বলতে শোনা যায় যে, ব্রডকাস্টাররা এভাবেই অর্থ উপার্জন করে।কোহলি কটাক্ষের সুরে বলেন,ওয়েল ডান ডিআরএস।