গ্রামের বাড়িতে ঘুরতে গিয়ে খুন কলকাতার ব্যবসায়ীর

0
10
বন্ধুকে নিয়ে গ্রামের বাড়িতে ঘুরতে গিয়ে পূর্ব বর্ধমানের রায়নায় কলকাতার বড়বাজারের পলিথিন ব্যবসায়ী সব্যসাচী মণ্ডলকে গুলি করে খুনের অভিযোগ উঠেছে। তবে, কে বা কারা কেন ওই ব্যবসয়ীকে খুন করেছে তা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে।

এই ঘটনায় ব্যবসায়ীর গাড়িচালক, রাঁধুনি এবং তার এক বন্ধুকে আটক করেছে পুলিশ। আটকদের জিজ্ঞাসাবাদ করেই রহস্যের সমাধান হবে বলে আশা করছেন তদন্তকারীরা। আদতে হাওড়ার শিবপুরের বাসিন্দা বছর চুয়াল্লিশের পলিথিন ব্যবসায়ী সব্যসাচী মণ্ডল শুক্রবার সন্ধেয় রাজবীর সিং নামে এক বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে বর্ধমানের রায়নার দারিয়াপুরের গ্রামের বাড়িতে গিয়েছিলেন। সঙ্গে ছিলেন তাঁর গাড়িচালক এবং এক রাঁধুনি। সূত্রের খবর, শুক্রবার সন্ধেয় গ্রামের বন্ধুদের নিয়ে বাড়ির ছাদেই পিকনিক শুরু করেন তিনি। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, পিকনিকের সময় বন্ধুদের সঙ্গে বচসাও হয় তাঁর। এরই মাঝে আচমকাই সব্যসাচীর গাড়িচালক ছাদে দৌড়ে আসেন। বেশ কয়েকজন ওই ব্যবসায়ীকে ডাকছেন বলে জানালে সব্যসাচী মণ্ডল ছাদ থেকে নীচে নামেন। অভিযোগ, এরপরই গুলির শব্দ শোনা যায়। আর গুলির শব্দ শুনে ছাদ থেকে তড়িঘড়ি নীচে নেমে ওই ব্যবসাযীকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। তাঁকে উদ্ধার করে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই ওই ব্যবসায়ীকে মৃত বলে ঘোষণা করেন ডাক্তাররা।