সংগ্রামপুর বিষমদ কাণ্ডে দোষী খোঁড়া বাদশা

0
13

সংগ্রামপুর বিষমদ কাণ্ডে দশ বছর পর মূল অভিযুক্ত নুর ইসলাম ওরফে খোঁড়া বাদশাহকে দোষীসাব্যস্ত করেছে আলিপুর আদালত। তবে, শনিবার সাজা ঘোষণা করেনি আদালত। 

জানিয়েছে, সংগ্রামপুর বিষমদ কাণ্ডে সোমবার সাজা ঘোষণা করা হবে। ২০১১ সালের ডিসেম্বর মাসে দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলার মগরাহাট, উস্থি, মন্দিরবাজার সহ ডায়মন্ড হারবার ব্লকের বিস্তীর্ণ এলাকায় বিষমদ খেয়ে মৃতু্য হয়েছিল একশো তিয়াত্তর জনের। সেই ঘটনার তদন্তে নেমে পুলিশ খোঁড়া বাদশার একের পর এক সহযোগীকে গ্রেফতার করলেও, অধরা ছিল মূল অভিযুক্ত। মাস খানেক ধরে পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে পালিয়ে বেড়ানোর পরে শেষপর্যন্ত আত্মসমর্পণ করে খোঁড়া বাদশাহ। তারপর থেকে এতদিন ধরে বিচারপ্রক্রিয়া চলছিল। প্রায় দশ বছর ধরে বিচারপ্রক্রিয়া চলার পরে শনিবার আলিপুর আদালত ভারতীয় দণ্ডবিধি এবং বেঙ্গল এক্সাইস অ্যাক্টের ধারায় খুন, গুরুতর ক্ষতিসাধন সহ একাধিক ধারায় খোঁড়া বাদশাকে দোষীসাব্যস্ত করেছে। তবে, সঙ্গী সাতজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণ না হওয়ায় তাদের বেকসুর খালাসের নির্দেশ দিয়েছে আলিপুর আদালত।