সুপার গার্ল হতে চান ঋতাভরী

0
24

ভারতে কোনও ওয়ান্ডার ওম্যান নেই,মাঝেমধ্যেই প্রশ্ন ঘুরপাক খায় অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তীর মনে। প্রশ্নের উত্তর না পেলেও সুপারগার্ল হওয়ার ইচ্ছা ইতিমধ্যেই পূরণ করে ফেলেছেন ঋতাভরী,সৌজন্য ইনস্টাগ্রাম।

একটি অ্যাপের মাধ্যমে ওয়ান্ডার ওম্যান-এর মুখের বদলে নিজের মুখ বসিয়েছেন ঋতাভরী।তারপর ডিসি ইউনিভার্সের সেই ছবির বিখ্যাত কিছু দৃশ্যে গ্যাল গ্যাডোটের বদলে ভেসে উঠেছে ঋতাভরী’র মুখ।ইনস্টাগ্রামে সেই ভিডিয়োও পোস্ট করেছেন ঋতাভরী চক্রবর্তী। লিখেছেন, আহ,আমার ভিতরের ওয়ান্ডার ওম্যান এই ভিডিয়োটিতে জীবন্ত হয়ে উঠল।ঋতাভরীর কথায়,ভারতে বেশ কয়েকটা সুপারহিরো আছে। কিন্তু সেই অর্থে কোনও সুপার গার্ল কিন্তু নেই। ঋতাভরী চান এ বার ভারতের নিজস্ব একটা সুপার গার্ল থাকুক। যাকে দেখে বাকিরা অনুপ্রাণিত হবে। তবে ফ্লায়িং জাঠ-এর মতো ছবি চান না অভিনেত্রী। ঋতাভরী চান গুরুত্ব দিয়ে, হলিউডের মতো রুচিশীল এবং নান্দনিক ভাবে তৈরি হোক এ ধরনের ছবি। ভারতীয় অভিনেত্রীদের এই ঘরানায় কাজের সুযোগ আসা উচিত বলে অভিমত তাঁর। ঋতাভরী বলেছেন,বাংলাতেই এই ছবি হতে হবে,তার কোনও মানে নেই।যে কোনও ভারতীয় ভাষায় হোক। তিনি না হয় অভিনয় করলেন না সেই চরিত্রে। কিন্তু দীপিকা বা অন্য কেউ করুক, এ ধরনের ছবি হওয়াটা বড় কথা,বলছেন অভিনেত্রী ঋতাভরী।