অনলাইন ক্লাস থেকে বাদ ছাত্র, স্কুলকে নোটিস হাইকোর্টের

0
1

Last Updated on by

ফি না মেলায় অনলাইন ক্লাস  থেকে পড়ুয়াদের বের করে দেওয়ার অভিযোগে দিল্লির বেসরকারি স্কুলকে শোকজ নোটিস পাঠিয়েছে দিল্লি হাইকোর্ট।

বিচারপতি প্রতিভা এম সিংয়ের সিঙ্গেল বেঞ্চে মামলার শুনানি হয়েছে। ৭ আগস্ট, ওই স্কুলের প্রিন্সিপ্যাল ও চেয়ারম্যানকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শুনানিতে উপস্থিত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি। মামলাকারীর সমস্ত তথ্য খতিয়ে দেখার পর হাইকোর্টের প্রশ্ন, আদালতের নির্দেশ অবমাননার অভিযোগে কেন ওই স্কুলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি? আবেদনকারী ছাত্রের বাবা জানিয়েছেন, ফি না দেওয়ার কারণে স্কুলের পোর্টালে প্রবেশের অনুমতি মেলেনি। এমনকি ২০২০সালের এপ্রিল থেকে জুন পর্যন্ত আবেদনকারীর প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি। আরও বলা হয়েছে, স্কুলে পরীক্ষা শুরু হয়েছে। ওই পরীক্ষা দেওয়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছে পড়ুয়ারা। উল্লেখ্য, দিল্লি হাইকোর্ট স্কুলের পোর্টাল পড়ুয়াদের জন্য খুলে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল, যাতে তারা অনলাইন ক্লাসে যোগ দিতে পারে। আদালত আরও বলেছিল, আবেদনকারীকে ১ সপ্তাহের মধ্যে স্কুল ফি দিতে হবে। কিন্তু এই সময়ের মধ্যে ওই ছাত্রের জন্য অনলাইন ক্লাস বন্ধ করা যাবে না। ভার্চুয়াল ক্লাসে স্কুলের কার্যক্রম থেকে ওই পড়ুয়াদের বঞ্চিত করা যাবে না বলেও নির্দেশ দিয়েছিল আদালত। এই রায় দেওয়ার সময় পর্যবেক্ষণে দিল্লি হাইকোর্ট বলেছিল শিশুদের শিক্ষা গুরুত্বপূর্ণ। তাই কত ফি কতদিনের মধ্যে দিতে হবে, তা এক সপ্তাহের মধ্যে আবেদনকারীকে জানাবে স্কুল।