১৪টি ফসলের সর্বনিম্ন দাম নির্ধারণ, হকারদের ঋণ

0
18

দেশে কৃষকদের হাতে যাতে আরও টাকা আসে, অর্থাৎ উৎপাদিত ফসল থেকে কৃষকরা যাতে আরও টাকা পান, সেজন্য আরও ১৪টি ফসলের সর্বনিম্ন দাম নির্ধারণ করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। সোমবারের ক্যাবিনেট বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও নিরাপত্তা ও আর্থিক বিষয়ক ক্যাবিনেট বৈঠকে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প এবং খুচরো বা রাস্তার বিক্রেতাদের জন্য ২০ হাজার কোটি টাকার ঋণ মঞ্জুর করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।দ্বিতীয় মোদি সরকারের প্রথম বর্ষপূর্তির প্রথম দিনেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। নয়দিল্লীতে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে অনুষ্ঠিত বৈঠকে ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং ও অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ-সহ অনেকেই।বৈঠকে,পাশাপাশি, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প ক্ষেত্রে ৫০ হাজার কোটি টাকার বিনিয়োগের সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়েছে মন্ত্রিসভার বৈঠকে। হকার বা ফুটপথের দোকানদারদের ১০ হাজার টাকা করে ঋণ দেওয়ার সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়েছে বলে সাংবাদিক সম্মেলনে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাবড়েকর। কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমার জানিয়েছেন, কৃষকদের খারিফ শস্যের জন্য ন্যূনতম সহায়ক মূল্য দেওয়া হবে।এবার ধানের জন্য ন্যূনতম সহায়ক মূল্য ধার্য করা হয়েছে ১ হাজার ৮৬৮ টাকা প্রতি কুইন্টাল।জওয়ারের জন্য কুইন্টাল প্রতি ২ হাজার ৬২০ টাকা ও বাজরার জন্য ২ হাজার ১৫০ টাকা প্রতি কুইন্টাল করে ন্যূনতম সহায়ক মূল্য দেওয়া হয়েছে কৃষকদের।