বিতর্কের মধ্যেই মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুশীল চন্দ্র

0
26

পশ্চিমবঙ্গ সহ ৫ রাজ্যের বিধানসভা ভোটপর্বের মধ্যেই দেশের মুখ্য নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব নিয়েছেন সুশীল চন্দ্র। মুখ্য নির্বাচন কমিশনার পদে সুনীল অরোরার মেয়াদ শেষ হয়েছে সোমবার।

তাঁর স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন সুশীল চন্দ্র।৬৩ বছরের সুশীল ২০১৯-এর লোকসভা ভোটের আগে নির্বাচন কমিশনার নিযুক্ত হয়েছিলেন।তার আগে সেন্ট্রাল বোর্ড অব ডাইরেক্ট ট্যাক্সেস-এর চেয়ারপার্সন পদে ছিলেন তিনি। ২০২২ সালের ১৪ মে পর্যন্ত মুখ্য নির্বাচন কমিশনার পদে থাকবেন ১৯৮০-র ব্যাচের ইন্ডিয়ান রেভেনিউ সার্ভিস বা আইআরএস সুশীল চন্দ্র। তাঁর কার্যকালের মধ্যে উত্তরপ্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, পঞ্জাব, গোয়া এবং মণিপুরের বিধানসভা ভোট হওয়ার কথা।সুনীলের অবসর এবং সুশীল চন্দ্র মুখ্য নির্বাচন কমিশনার পদে উন্নীত হওয়ার ফলে ৩ সদস্য বিশিষ্ট নির্বাচন কমিশনের একটি পদ শূন্য হয়েছে। নির্বাচন কমিশনার পদে রয়েছেন অপর সদস্য রাজীব কুমার।সুনীলের নেতৃত্বে নির্বাচন কমিশন সোমবার তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভোট প্রচারে ২৪ ঘণ্টার নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। প্ররোচনামূলক বক্তব্যের কারণেই এই পদক্ষেপ করা হলেও কমিশনের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই সুর চড়িয়েছে তৃণমূল। পক্ষপাতদুষ্টতার অভিযোগও উঠেছে। এই আবহে পশ্চিমবঙ্গে পরবর্তী ৪ দফার ভোটপর্ব পরিচালনার গুরুদায়িত্ব পেয়েছেন সুশীল চন্দ্র।