রাজনীতিতে মাস্ক হাতিয়ারে পরিণত

0
127

করোনার কারণে কিছুটা বাধ্য হয়েই মাস্ক চিনেছে পশ্চিমবঙ্গ। করোনাকালে সুস্বাস্থ্যের প্রতিশ্রুতির পাশাপাশি মাস্ক ব্যবহারে রয়েছে নিজস্বতাও।

নতুন মাত্রা যোগ হচ্ছে ব্যক্তিত্বেও।করোনার আবহে মাস্ক-বার্তা রাজনীতির আঙিনাতেও।সংক্রমণের আশঙ্কা রোখার বার্তার পাশাপাশি পশ্চিমবঙ্গ রাজনীতিতে মাস্ক কার্যত হাতিয়ারেই পরিণত হয়েছে।পছন্দ হোক বা না হোক, মাস্ক এড়ানোর কোনও উপায় আপাতত নেই। মাস্কই বাঁচাবে করোনা ছাড়াও আরও অনেক বিপদের হাত থেকেই এবং ঠিকভাবে ব্যবহার করতে পারলে, এই মাস্কই হয়ে উঠতে পারে নতুন ফ্যাশন স্টেটমেন্ট। ঠিক যেমনটা হয়ে উঠেছে পশ্চিমবঙ্গ-রাজনীতিতেও।

বেশ বড় আকারের দলীয় নির্বাচনী প্রতীক পদ্ম আঁকা মাস্ক পরে প্রায়ই সাংবাদিক বৈঠকে আসছেন বি জে পি  রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। দলের অন্য অনেক নেতাকেই দলীয় প্রতীক ব্যবহার করা মাস্ক পরতে দেখা যাচ্ছে। প্রচারের সুযোগ যে হাতছাড়া করা যাবে না, তা মাস্কে অতিবড় পদ্মতেই স্পষ্ট।

তুলনায় শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা নেত্রীরাও পিছিয়ে নেই। প্রতীক ব্যবহার করা মাস্ক পরতে এখনো দেখা যায়নি তৃণমূল কংগ্রেস নেতাদের। তবে নজর কেড়েছে খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ব্যবহার করা বাংলা মানচিত্রের ছবি-সমেত মাস্ক। প্রশাসনিক বৈঠক থেকে দলীয় আলোচনা- সর্বত্রই এই বাংলার মানচিত্রের মাস্ক পরতে দেখা যাচ্ছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। কখনও আকাশী নীল, তো কখনও গাঢ় নীল রঙের মাস্কের বর্ডার।মধ্যের অংশ প্রতিবারই সাদা।মাস্কেও পছন্দের নীল-সাদা রঙের ছোঁয়া রেখেছেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই সঙ্গেই রয়েছে বাংলার মানচিত্র। কখনও শুধু মানচিত্র দেখা গেছে, কখনও বা তার উপর লেখা,মা।কারণ তৃণমূল কংগ্রেসের দলীয় নির্বাচনী স্লোগান, মা মাটি মানুষ।

করোনা মহামারী ও আমপান প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মাস্কেও বাংলার প্রাধান্য নজর এড়ায়নি। কেউ যেমন মাস্কেও বাংলাকে প্রাধান্য দেওয়ার চিন্তাভাবনার প্রশংসা করেছেন, তেমনই দেখা গেছে শাড়ির সঙ্গে সামঞ্জস্য রাখা মাস্কের রঙের প্রশংসাও।পিছিয়ে নেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দলের নেতারাও। বিধানসভায় তৃণমূল কংগ্রেসের মুখ্য সচেতক নির্মল ঘোষ মুখ্যমন্ত্রীর মা মাস্কের সঙ্গে দিলীপ ঘোষের পদ্ম মাস্কের তুলনা টেনে পোস্টও করেছেন। এছাড়াও জয় বাংলা ও জিতবে বাংলা মাস্কে দেখা গেছে তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাদের। ২০২১ সালে রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন। মাস্ক ব্যবহারেও সেই রাজনৈতিক সচেতনতা চোখে পড়ছে।

আর তা নিয়েও রাজনীতি হচ্ছে। এই যেমন তৃণমূল কংগ্রেসের বীরভূমের জেলা সভাপতি অনুব্রত মন্ডল, এই পদ্ম আঁকা মাস্ক ব্যবহারের জন্যে দিলীপ ঘোষকে বিঁধেছেন।  তাঁর যুক্তি,পদ্ম হিন্দুদের পবিত্র ফুল, দূর্গা পুজোয় লাগে।  তা যদি ,বি জে পি -র রাজ্য সভাপতি মুখে বেঁধে রাখেন এবং কথা বলেন, তবে তাতে থুতু পড়তে বাধ্য।  অনুব্রতর মনে হয়েছে, এই ভাবে  বি জে পি -র রাজ্য সভাপতি নিজেদের দলীয় প্রতীকেই থুতু ছেটাচ্ছেন।  ভাবুন ব্যাপারটা !