ছেলের ঘরের মেঝে খুঁড়ে উদ্ধার মায়ের দেহ

0
19
ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে বর্ধমানের ঘরের মেঝে খুঁড়ে মায়ের দেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। দুবছর ধরে মাটির নীচে পোঁতা থাকায় দেহটি কঙ্কালে পরিণত হয়েছে ।
কঙ্কালটি নিহত সুকরানা বিবির-ই কিনা তা জানতে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে । মাকে খুন করে ঘরের মেঝেতে পুঁতে দুবছর ধরে সেখানেই বসবাসের অভিযোগ উঠেছিল পূর্ব বর্ধমান জেলার হটু দেওয়ান এলাকার বাসিন্দা শেখ সইদুল ওরফে নয়ন। স্ত্রী-র অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয় তাকে। ভাইরাল এক ভিডিও-য় মাকে খুনের কথা স্বীকার করতেও শোনা যায় ছোট ছেলে সইদুল ওরফে নয়নের বিরুদ্ধে। এই অবস্থায় বুধবার সকালে অভিযুক্ত ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে তার বাড়িতে যায় পুলিশ। ঠিক কোন জায়গায় দেহ পোঁতা হয়েছিল তা অভিযুক্তই আঙুল দিয়ে চিহ্নিত করেন। এরপরই দেহ বার করার উদ্দেশে পুলিশ মেঝে খুঁড়তেই ভিতর থেকে বেরিযে আসে মাথার খুলি, হাড় কঙ্কাল। আর তা উদ্ধার করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে । পুলিশ সূত্রে খবর, কীভাবে মা সুকরানা বিবি-কে মেরেছিল ছোট ছেলে সইদুল তা জানতে ঘটনার পুনর্নির্মাণ করানো হবে।