Monday, May 27, 2024
Top News ১৯৯৩-র বিস্ফোরণের মামলায় বেকসুর খালাস টুন্ডা

 ১৯৯৩-র বিস্ফোরণের মামলায় বেকসুর খালাস টুন্ডা

প্রমাণের অভাবে বেকসুর খালাস পেয়েছেন ১৯৯৩ সালে একাধিক ট্রেন বিস্ফোরণে অভিযুক্ত আব্দুল করিম টুন্ডা। বৃহস্পতিবার আব্দুল করিম টুন্ডাকে প্রমাণের অভাবে মুক্তি দিয়েছে রাজস্থানের বিশেষ আদালত।
তবে একই মামলা দুই অভিযুক্ত আমিনুদ্দিন এবং ইরফানকে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।আব্দুল করিম টুন্ডার বিরুদ্ধে ওই বিস্ফোরণের মামলায় উপযুক্ত প্রমাণ মেলেনি বলে উল্লেখ করেছে আদালত। তারপরই তাঁকে বেকসুর খালাস করা হয়। ১৯৯৩ সালে লখনউ, কানপুর হায়দরাবাদ, সুরাট এবং মুম্বইয়ে ট্রেনে পর পর বিস্ফোরণ হয়। সেই বিস্ফোরণে দু’জনের মৃত্যু হয়েছিল। আহত হয়েছিলেন অনেকে। ১৯৯৩ সালের সেই বিস্ফোরণের মূল চক্রী হিসাবে অভিযুক্ত হয়েছিলেন আব্দুল করিম টুন্ডা।শুধু ১৯৯৩ সালই নয় ১৯৯৬ সালের হরিয়ানার সোনিপতে বোমা বিস্ফোরণের মামলায় দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পর ২০১৭ সালে তাঁকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়। অন্যদিকে, ১৯৯৭ সালের আরও একটি বোমা বিস্ফোরণের মামলায় গত বছরেই আব্দুল করিম টুন্ডাকে বেকসুর খালাস করে হরিয়ানার এক আদালত। সেই মামলাতেও প্রমাণের অভাবে তাঁকে বেকসুর খালাস করে আদালত। ১৯৯৭ সালের ২২ জানুয়ারি হরিয়ানার পুরতান সব্জি মণ্ডি এবং কিলা রোডে বিস্ফোরণ হয়। সেই ঘটনায় আট জন আহত হয়েছিলেন। ২০১৩ সালে নেপাল সীমান্ত থেকে আব্দুল করিম টুন্ডাকে গ্রেফতার করে সিবিআই।

More News