গড়িয়াহাটে জোড়া খুন, জোর চাঞ্চল্য-রহস্যও

0
14
গড়িয়াহাটের তিন তলা বাড়ি থেকে প্রৌঢ় ও তাঁর গাড়ি চালকের গলা-কবজি কাটা অবস্থায় জোড়া মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় জোর চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। বছর একষট্টির নিহত ওই প্রৌঢ়ের নাম সুবীর চাকি এবং তাঁর গাড়ি চালকের নাম রবীন মণ্ডল।
পুলিশ সূত্রে খবর, রবিবার, দ্বাদশীর বিকেল আনুমানিক সাড়ে পাঁচটা নাগাদ নিউটাউনের বাড়ি থেকে গড়িয়াহাটের কাঁকুলিয়া রোডে চালক রবীন মণ্ডলকে নিয়ে গিয়েছিলেন প্রৌঢ় সুবীর চাকি। পরিবারের লোক জানিয়েছেন, গড়িয়াহাটের কাঁকুলিয়া রোডের বাড়িটি বিক্রির চেষ্টা করছিলেন মালিক সুবীর চাকি। সেই সূত্রেই একজনকে ওই বাড়িটি দেখাতে গড়িয়াহাটে গিয়েছিলেন তিনি। তবে, অনেক রাত পর্যন্ত বাড়িতে না ফেরায় পরিবারের লোকের মনে সন্দেহ দেখা দেয়। নিহতের বাড়ির লোক জানিয়েছেন, ফোনও ধরছিলেন না ওই প্রৌঢ় ও তাঁর গাড়ির চালক। একটা সময়ে পর ফোন সুইচড অফও হয়ে যায় তাঁদের। এই অবস্থায় কাঁকুলিয়ার বাড়ির আশপাশের প্রতিবেশীদের সঙ্গে যোগাযোগ করে সুবীর চাকির পরিবার। খবর দেওয়া হয় পুলিশেও। পুলিশ জানিয়েছে, নির্দিষ্ট বাড়িতে গিয়ে দেখা যায় দোতলার ঘরে সুবীরের রক্তাক্ত দেহ পড়ে রয়েছে। আর বাড়ির তিন তলায় গাড়ি চালক রবীন মৃত অবস্থায় পড়ে রয়েছেন। পুলিশ দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। তবে, খুনের কারণ নিয়ে ধন্দ তৈরি হয়েছে।  কী কারণে খুন তা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।