দেশে বাড়ছে বেকারত্বের হারও

0
16

করোনাভাইরাস অতিমারীর দ্বিতীয় ঢেউ এবং তার মোকাবিলায় দেশের বিভিন্ন অংশে আংশিক লকডউনের কারণে ফের কর্মীছাঁটাই শুরু হয়েছে। যার ফলে মাথাচাড়া দিতে শুরু করেছে বেকারত্বের হার।

এমনই জানিয়েছে অর্থনৈতিক গবেষণা সংস্থা সেন্টার ফর মনিটরিং ইন্ডিয়ান ইকোনমি বা ,সিএমআইই।১১ এপ্রিল পর্যন্ত এক সপ্তাহের যে পরিসংখ্যান পাওয়া গিয়েছে তাতে দেখা যাচ্ছে বেকারত্বের হার ৮.৬ শতাংশ ছুঁয়েছে।অথচ, তার মাত্র দু’সপ্তাহ আগে, অর্থাৎ দেশের বিভিন্ন এলাকায় আংশিক লকডাউন যখনও শুরু হয়নি, তখন বেকারত্বের হার ৬.৭ শতাংশ ছিল।গত বছর গোটা দেশে দীর্ঘ লকডাউনের ফলে সব থেকে বেশি ভুগতে হয়েছিল পরিযায়ী শ্রমিকদের।গাড়ি, বাস, ট্রেন না পেয়ে পায়ে হেঁটে হাজার হাজার কিলোমিটার পথ পেরিয়ে নিজের বাড়িতে পৌঁছেছিল তাঁরা। মাঝ রাস্তায় প্রাণ হারানোয় বাড়ি ফেরাও হয়ে ওঠেনি অনেকের।এ বারেও সেই একই পরিস্থিতির মুখে পড়ার ভয়ে ইতিমধ্যেই শহর ছাড়তে শুরু করেছে পরিযায়ী শ্রমিকরা।এর জেরে শহরগুলিতে বেকারত্বের হার ১১ এপ্রিল পর্যন্ত শেষ হওয়া সপ্তাহে বেড়ে ১০ শতাংশ হয়েছে।বিশ্বে করোনা সংক্রমণের নিরিখে ফের ব্রাজিলের আগে ভারত। এক দিনে রেকর্ড ১ লক্ষ ৬৮ হাজার ৯১২ জনের সংক্রমণ ভারতকে তালিকার উপরের দিকে নিয়ে গিয়েছে। এর ফলে ভারতে মোট করোনা সংক্রামিতের সংখ্যা ১.৩৫ কোটি হয়েছে। ফের করোনাভাইরাস সংক্রমণ দ্রুত গতিতে বৃদ্ধি পাওয়ায় হাসপাতালগুলি সক্রিয় হয়ে উঠেছে। সংক্রমণ ঠেকাতে তৎপর হয়ে একাধিক পদক্ষেপ করছে করোনাভাইরাস সংক্রামিত রাজ্যগুলিও।