Tuesday, September 27, 2022
লাইফস্টাইলত্বকের যত্নে জল থেরাপি

ত্বকের যত্নে জল থেরাপি

শরীরের অঙ্গ ব্যবস্থাপনার পাশাপাশি আমাদের ধুলাবালি, জীবাণুর হাত থেকেও রক্ষা করে ত্বক। ত্বক ভালো রাখতে নিয়মিত যত্ন নেন, নানা প্রসাধনী ব্যবহার করেন।

তবে ত্বকের যত্নে জল সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। শরীরে জলের অভাব হলে প্রতিটি অঙ্গ-প্রতঙ্গের পাশাপাশি প্রভাব পড়ে ত্বকেও।আবার বাইরের ধুলা-ময়লা থেকে পরিত্রাণ পেতেও দরকার হয় জল।ত্বক আরো সুন্দর করতে প্রত্যেকেই দ্রুত সমাধান চান।যাঁরা খুব বেশি প্রসাধন ব্যবহার করতে চান না,আবার ত্বক সুস্থ সুন্দর রাখতে চান তাঁদের জন্য জল থেরাপি বেশ কার্যকর।রূপ বিশেষজ্ঞদের মতে, বছরের যেকোনো সময় বিশেষ করে গরমকালে কিছু দিন সব রকম প্রসাধনী ব্যবহার থেকে বিরত থাকা ত্বকের জন্য ভালো। এতে পুরো বছর প্রসাধনী ব্যবহারের ধকল কাটিয়ে ওঠার সুযোগ পায় ত্বক। এই সময় জলের নানা মিশ্রণ ব্যবহার করা যেতে পারে। ত্বক পরিষ্কার করা থেকে ময়েশ্চারাইজেশন, সবকিছুই করা সম্ভব শুধু জল দিয়ে।ত্বকের সাধারণ একটি সমস্যা ব্রণ। সময়মতো যত্ন না নিলে এ সমস্যা বাড়তে পারে। জল গরম করার সময় তাতে পরিষ্কার নিমপাতা ও পুদিনাপাতা দিয়ে ভালোভাবে ফুটিয়ে একটি পরিষ্কার পাত্রে নিয়ে তাতে কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল যোগ করে সেই বাষ্পে ত্বক ভিজিয়ে নিন। খেয়াল রাখতে হবে, ত্বকে যেন অতিরিক্ত তাপ না লাগে।ত্বকের সমস্যায় নিয়মিতই বিভিন্ন প্রসাধনী ব্যবহার করেন।এগুলোতে থাকা নানা রাসায়নিক উপাদানের কারণে ত্বকে অনেক সময় বিরূপ প্রভাব পড়ে।পর্যাপ্ত বিশুদ্ধ জল পান করার মাধ্যমে এই ক্ষতি কাটিয়ে ওঠা সম্ভব।রাতে ঘুমানোর আগে এবং সকালে ঘুম থেকে উঠে মুখ পর্যাপ্ত জলের ঝাপটা দিয়ে নিয়মিত পরিষ্কার করলে ত্বকে লেগে থাকা অম্লীয় বা ক্ষারীয় পদার্থগুলো পরিষ্কার হয়ে ত্বকের সুষম পিএইচ ব্যালান্স বজায় থাকে। অন্যদিকে চোখের ফোলা ভাব অনেকেরই একটি সাধারণ সমস্যা। কাজের চাপ বা কম ঘুমানোর কারণে চোখের আশপাশে ফোলা ভাব দেখা দিতে পারে।এক টুকরা বরফ একটি পরিষ্কার কাপড় বা রুমালে পেঁচিয়ে চোখের চারপাশে আলতো করে বৃত্তাকারে ম্যাসাজ করলে রক্তসঞ্চালন বাড়ে। এতে চোখের ফোলা ভাব কমে। প্রতিদিনের ব্যবহারে চোখের নিচের কালো দাগও দূর হয়।পাশাপাশি,সারা দিন বাইরে থাকলে ত্বকে ময়লা লাগাই স্বাভাবিক। দিনে কয়েকবার জলের ঝাপটা দিলে মুখে ময়লা জমতে পারে না। তাই তিন-চার ঘণ্টা পর পর মুখে জলের ঝাপটা দেওয়া উচিত। নিষ্প্রাণ ত্বকে সজীবতা ফিরিয়ে আনতেও অন্যতম সহায়ক জল। বয়সের ছাপ ও বলিরেখা কমাতেও জলের বিকল্প নেই। জল ত্বকের কোলাজেন ধরে রাখতে সাহায্য করে। কারণ কোলাজেনের প্রধান অংশ গঠিত হয় জল দিয়ে। প্রচুর পরিমাণে জল পান করলে ত্বক ঝুলে যাওয়া সমস্যা থেকে রেহাই পায়। শরীরকে ভেতর থেকে পরিষ্কার করতেও পানির জুড়ি নেই। বিভিন্ন ধরনের পানীয় শরীরকে ভেতর থেকে পরিষ্কার করতে ও চেহারার উজ্জ্বলতা বাড়াতে সাহায্য করে।

More News

পাম অয়েল রফতানি বন্ধ ইন্দোনেশিয়ার 

0
ভারতে পাম অয়েল রফতানি বন্ধ করেছে ইন্দোনেশিয়া। এর ফলে ভারতে ভোজ্য তেল এবং পণ্যের দাম এক...