গৃহহীন চীনের জনপ্রিয় অভিনেত্রী

0
3

ঝাও ওয়েই। ভিকি ঝাও নামেও পরিচিত তিনি। চীনের প্রথম সারির ধনকুবেরদের সঙ্গে একই সারিতে উচ্চারিত হত জনপ্রিয় এই অভিনেত্রীর নাম। এখন নিজের জন্মভূমিতেই অস্তিত্বহীন হয়ে হয়ে গিয়েছেন ঝাও।

রাতারাতি চীনে কাটানো তার ৪৫টি বছর মুছে গেছে।চীনের নেটমাধ্যমে তার কোনও অ্যাকাউন্ট নেই। চীনে ইন্টারনেটে হাজার খুঁজলেও তার সম্পর্কে কোনও তথ্য মিলবে না। এমনকি রাস্তায় রাস্তায় থাকা তার ছবি দেওয়া বিজ্ঞাপনও রাতারাতি উধাও।কী কারণে এভাবে রাতারাতি গায়েব করে দেওয়া হল ঝাওকে? কেনই বা গৃহহীন হতে হল তাকে? প্রশ্ন অনেকের। কিন্তু এসব প্রশ্নের কোনও ব্যাখ্যা আজ পর্যন্ত কোনও উত্তর পাওয়া যায়নি।ঝাওয়ের জন্ম আনহুইয়ের উহুতে। বাবা ইঞ্জিনিয়ার। মা ছিলেন প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষিকা। ছোট থেকে নিজের পরিচিত বৃত্তের মধ্যে থেকেই বড় হয়েছেন ঝাও। উহুর স্কুলেই পড়াশোনা করেছেন।১৯৯৩ সালে স্কুলে পড়ার সময় পরিচালক হুয়াং শুকিন ,এ সোল হন্টেড বাই পেন্টিং, ছবির জন্য তাকে প্রস্তাব দেন। সেই থেকেই অভিনয়ের প্রতি ভালবাসা তৈরি হয় ঝাওয়ের। স্নাতক হওয়ার পর তাই স্কুলের নিশ্চিত চাকরি ছেড়ে অভিনেত্রী হতে চলে যান।সাংহাইয়ে একটি অভিনয় শেখানোর স্কুলে ভর্তি হন। ১৯৯৭ সালে প্রযোজক শিয়াং ইয়াও-এর টিভি সিরিজ ,মাই ফেয়ার প্রিন্সেস-এ অভিনয়ের দৌলতেই তুমুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিলেন তিনি। ধীরে ধীরে চীনের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক নেওয়া অভিনেত্রী হয়ে ওঠেন। চীনের প্রথম সারির ধনকুবেরও ঝাও ওয়েই বা ভিকি ঝাও।